দৌলতদিয়ায় যুবকের লাশ উদ্ধার

গোয়ালন্দে ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেলের চালক মঞ্জু শেখকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এ সময় তার মোটরসাইকেলটিও নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। মঞ্জু গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের রহমান ফকিরপাড়া গ্রামের বাবলু শেখের ছেলে। শনিবার সকাল ১০টার দিকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

স্থানীয়রা জানায়, দৌলতদিয়া আক্কাস আলী হাইস্কুল সংলগ্ন আইনউদ্দিন ব্যাপারিপাড়া এলাকায় সকালে স্থানীয় কৃষকরা কাজ করতে গিয়ে মরা পদ্মা নদীর পাড়ে মঞ্জুর লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেন। খবর পেয়ে শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে। তাকে ধারালো অস্ত্র নিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

নিহতের স্বজনরা জানান, তিন মাস আগে মোটরসাইকেল কিনে মঞ্জু ভাড়ায় যাত্রী পরিবহন করতেন। গত শুক্রবার দুপুরে এক তরুণ বাড়ির কাছে এসে ফোন করলে মোটরসাইকেল নিয়ে তড়িঘড়ি করে বেরিয়ে যান মঞ্জু। এ সময় মঞ্জুর বাবা ওই তরুণের পরিচয় জানতে চাইলে মঞ্জু

জানান, ওই তরুণ দৌলতদিয়া মণ্ডল হ্যাচারিতে চাকরি করে। তিন ভাই ও দুই বোনের মধ্যে মঞ্জু সবার বড়। মঞ্জুর স্ত্রী ও পাঁচ বছর বয়সী এক মেয়ে রয়েছে।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি (তদন্ত) মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, তার মোটরসাইকেলটি ছিনতাইয়ের জন্যই তাকে হত্যা করা হয়েছে। তবে তদন্তে এ হত্যাকাণ্ডের প্রকৃত কারণ বেরিয়ে আসবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Captcha loading...