গোয়ালন্দে ১৭দিনে ৪লাশ উদ্ধার

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ও উজানচর থেকে গত ১৭ দিনে চার অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সর্বশেষ মঙ্গলবার (৩০ অক্টোবর) সকালে দৌলতদিয়ার পোড়াভিটা সংলগ্ন পুকুর থেকে অজ্ঞাত এক যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ৩০ অক্টোবর সকাল ১০টার দিকে দৌলতদিয়া যৌনপল্লী থেকে পোড়াভিটায় চলাচলের জন্য বাঁশের মাচার পাশে বস্তাবন্দি অবস্থায় একটি মৃতদেহ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার উপ-পরিদর্শক পরিমন কুমার জানান, ধারনা করা হচ্ছে দুই থেকে তিন দিন আগে আনুমানিক ২৬ বছরের এ যুবককে হত্যা করে লাশ বস্তাবন্দি করে পুকুরে ফেলে দেওয়া হয়েছে।

লাশের সুরত হাল রিপোর্টে দেখা যায়, তার শরীরের কোথাও কোনো আঘাতের চিহ্ন নেই। প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে ঐ যুবককে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে গত ১৩ অক্টোবর দৌলতদিয়া ৬নং ফেরিঘাট এলাকা থেকে আনুমানিক ২৫ বছর বয়সী এক যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এর পর গত ২৩ অক্টোবর উপজেলার উজানচর ইউনিয়নের মরাপদ্মা নদী থেকে আনুমানিক ৩৫ বছর বয়সী অজ্ঞাত এক ব্যক্তির হাত-পা বাঁধা মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

গত ২৭ অক্টোবর দৌলতদিয়া আক্কাস আলী মাধ্যমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন আইনউদ্দিন ব্যাপারীপাড়া মরাপদ্মা নদীর পাড় থেকে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তার মুখের নিচে, ঠোঁটের ওপরে ও মাথায় ধারালো অস্ত্রের কোপানোর চিহ্নসহ পায়ের রগ কাটা ছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Captcha loading...